Text size A A A
Color C C C C
পাতা

সিটিজেন চার্টার

 

 

সেবা প্রদানের নূন্যতম সময়সীমা

 

 

 

ক্রমিক নং

সেবা খাত সমূহ

০২

শিক্ষামন্ত্রণালয়/ মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষাঅধিদপ্তর / আঞ্চলিক  উপ- পরিচালক / জেলা শিক্ষাঅফিস হতে প্রাপ্ত মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাসংক্রামত্ম পরিপত্র ও নির্দেশনা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পর্যায়ে পৌঁছানো এবং তা বাসত্মবায়নে স্বক্রিয়থাকা ।

০১

শিক্ষানীতি ২০১০ এর সিদ্ধামত্ম সমূহ মাঠ পর্যায়ে বাসত্মবায়নে স্বক্রিয়ভূমিকা রাখা।

০৩

শিক্ষার গুণগত মানউন্নয়নে জাতীয় / আঞ্চলিক পর্যায়ে উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণের লক্ষ ্য শিক্ষা  কর্তৃপক্ষের নির্দেশ মোতাবেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সমূহ হতে তথ্য- উপাত্ত সংগ্রহ পূর্বক প্রতিষ্ঠান / উপজেলা ভিত্তিক সমন্বিত তথ্য প্রেরণ।

নির্দেশিত সময়সূচী মোতাবেক ।

 

০৪

শিক্ষার্থীদের  ঝরে পড়া রোধ কল্পে মাধ্যমিক পর্যায়ে দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষা থীদের শতকরা ৩০ ভাগ ছাত্রী এবং ১০ ভাগ ছাত্রদেরকে ‘‘মাধ্যমিক শিক্ষা  উপবৃত্তি প্রদান’’ প্রকল্পের মাধ্যমে উপবৃত্তি প্রদান। উপবৃত্তি প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের  বিপরীতে টিউশন ফি প্রতিষ্ঠানের হিসাব নম্বরে প্রেরণ- তথানির্ধারিত শিক্ষার্থীদের  অবৈতনিক শিক্ষাবাসত্মবায়ন।

প্রতি ছয় মাসে ০১(এক)  কিসিত্ম ।

 

০৫

নারী শিক্ষার যথাযথ বিকাশের লক্ষ ্য উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণির শতকরা ৪০ ভাগ দরিদ্র ও মেধাবী ছাত্রীদেরকে ‘‘উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের ছাত্রীদের উপবৃত্তি প্রদান প্রকল্প’’ এর মাধ্যমে উপবৃত্তি প্রদান এবং সংশিস্নষ্ট ছাত্রীদের বিপরীতে প্রতিষ্ঠানের ব্যাংক হিসাব নম্বরে টিউশন ফি প্রেরণ- তথা সংশিস্নষ্ট ছাত্রীদের অবৈতনিক শিক্ষাবাসত্মবায়ন ।

প্রতি ছয় মাসে ০১(এক)কিসিত্ম ।

 

০৬

শিক্ষামন্ত্রণালয় হতে প্রাপ্ত মাধ্যমিক পর্যায়ের বিনামূল্যের পাঠ্য পুসত্মক সমূহ গ্রহণ, সংরক্ষ ণ এবং প্রতিষ্ঠান পর্যায়ে বিতরণ।

প্রতি বৎসর ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে।

 

 

চলমান পাতা-০৬

(পাতা-০৬)

 

০৭

শিক্ষাগুণগত মান বৃদ্ধি এবং সার্বিক বিকাশের লক্ষ ্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সমূহে কর্মরত শিক্ষ ক/শিক্ষার্থীদের নিয়মিত উপস্থিতি এবং শ্রেণি কক্ষ  সমূহে শিক্ষাদান পদ্ধতির প্রয়োগ নিশ্চিত করার্থে প্রতিষ্ঠান সমূহ পরিদর্শন এবং একাডেমিক সুপারভিশন।

প্রতি মাসে কমপক্ষ  ১০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান।

০৮

মাল্টিমিডিয়া ক্লাশ রম্নম/ শিক্ষাদান পদ্ধতি/ প্রশাসনিক প্রশিক্ষ ণ গ্রহণের জন্য বিষয় ভিত্তিক শিক্ষ কগণের তালিকা নিরূপণ এবং তা উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ র বরাবরে প্রেরণ।

নির্দেশিত সময়সূচী মোতাবেক।

০৯

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সমূহে কর্মরত শিক্ষ ক/কর্মচারীগণের উপস্থিতি নিশ্চিত করার লক্ষ ্য সরকারী মাসিক বেতন বিলের সাথে আব্যশিকভাবে সংযোগতব্য ‘‘শিক্ষ ক/ কর্মচারীগণের উপস্থিতির প্রতিবেদন’’ এ প্রতিস্বাক্ষ র করা। 

প্রতি মাসে ০১ বার।

১০

ইভটিজিং / বাল্য বিবাহ/ শিক্ষার্থীদের ঝরে পড়া/ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কর্তৃক শিক্ষার্থীদের নিকট  হতে অতিরিক্ত ফি আদায় (প্রযোজ্য ক্ষ ত্রে)  রোধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ ।

যখন যাহা প্রযোজ্য।

 

(ঙ) সিটিজেন চার্টারঃ

 

ক্রমিক নং

সেবার ধরণ

সেবা দানকারী অফিস

সেবা গ্রহিতার করণীয়

কার্য্যক্রম/ প্রক্রিয়া

০১

মাধ্যমিক শিক্ষাপর্যায়ে উপবৃত্তি ও টিউশন ফি প্রদান

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষাঅফিস

উপবৃত্তি প্রাপ্তির শর্তাবলী ঃ

* শ্রেণি কক্ষ  উপস্থিতি কমপক্ষ  ৭৫% হওয়া (প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের ক্ষ ত্রে শিথিলযোগ্য)।

* ৬ষ্ঠ ও ৭ম শ্রেণিতে বার্ষিক পরীক্ষা য় গড়ে নূন্যতম ৩৩%, ৮ম-৯ম শ্রেণিতে বা©র্র্ষক পরীক্ষা য় গড়ে নূন্যতম ৪০% এবং ১০ম শ্রেণিতে শিক্ষাবোর্ডের নিয়মানুসারে নির্বাচনী পরীক্ষা য় উত্তীর্ণ হওয়া।

* এস,এস,সি / দাখিল পরীক্ষা য় অংশ গ্রহণ করা পর্যমত্ম অবিবাহিত থাকা।

অপেক্ষা কৃত দরিদ্র শিক্ষার্থীর অভিভাবকের বার্ষিক আয়ঃ

 অপেক্ষা কৃত দরিদ্র শিক্ষার্থীর অভিভাবকেরবার্ষিক আয়  ৩০,০০০/- (ত্রিশ হাজার ) টাকার কম হতে হবে।

অথবা শিক্ষার্থীর পিতা/ অভিভাবকের ৫০ শতাংশের কম জমি থাকতে হবে।

অথবা দুঃস্থ  অসহায় জনগোষ্ঠী (যেমন- এতিম, অনাথ ) হতে হবে।

অথবা অস্বচ্ছল মুক্তিযোদ্ধার সমত্মান হতে হবে।

অথবা উপার্জনে অসমর্থ/ বিকলাঙ্গ (যেমনঃ পঙ্গু, অন্ধ, বোবা ইত্যাদি) পিতা/মাতার সমত্মান হতে হবে।

অথবা নদী ভাঙ্গণ কবলিত / বাস্ত্তহারা ও অস্বচ্ছল পরিবারের সমত্মান হতে হবে।

অথবা নিম্ন আয়ের শ্রমজীবী (যেমনঃ রিক্সাচালক, দিনমজুর ইত্যাদি) অভিভাবকের সমত্মান হতে হবে।

অথবা  চরম প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী হতে হবে।

উপবৃত্তি প্রাপ্তির যোগ্য শিক্ষার্থীদের তালিকা নিরূপণ। অতপর সংশিস্নষ্ট শিক্ষার্থীদের ব্যাংক হিসাব খোলা এবং চেকের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের টাকা প্রদান করা। প্রতি ছয় মাসে ০১ কিসিত্ম তথা বৎসরে ০২ বার উপবৃত্তির টাকা বিতরণ করা।

 

উপবৃত্তি প্রকল্পের আওতায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সমূহের সংখ্যাঃ

উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়   - ০১টি

উচ্চ বিদ্যালয়              - ১৪টি

মাদ্রাসা                     - ০৮টি

নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়    -০৩টি।

 

 

 

 

 

চলমান পাতা-০৭

(পাতা-০৭)

 

০২

উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের ছাত্রীদের উপবৃত্তি প্রদান

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষাঅফিস

উপবৃত্তি প্রাপ্তির শর্তাবলীঃ

* শিক্ষাবর্ষে শ্রেণি উপস্থিতি কমপক্ষ  ৭৫%হওয়া।  

* এইচ.এস.সি/ আলিম / এইচ.এস.সি (ভোকেশনাল)/ সমমানের চুড়ামত্ম পরীক্ষা য় অংশগ্রহণ করা পর্যমত্ম অবিবাহিত থাকা।

* এইচ.এস.সি/ আলিম / এইচ.এস.সি (ভোকেশনাল)/সমমান  শ্রেণির নিয়মিত ছাত্রী হওয়া।

*এস.এস.সি. দাখিল বা সমমানের পরীক্ষা য় উত্তীর্ণ হওয়ার পর কোন প্রকার পাঠ বিরতি না থাকা।

* এস.এস.সি দাখিল বা সমমানের পরীক্ষা য় নিয়মিত হিসেবে উত্তীর্ণ হওয়া।

* এইচ.এস.সি/ আলিম / এইচ.এস.সি (ভোকেশনাল)/ সমমান শ্রেণির অভ্যমত্মরীণ বা নির্বাচনী পরীক্ষা য় নিয়মিত ছাত্রী হিসেবে উত্তীর্ণ হওয়া।

 

অপেক্ষা কৃত দরিদ্র শিক্ষার্থীর অভিভাবকের বার্ষিকআয়ঃ

* উপবৃত্তি প্রাপ্তির জন্য নির্বাচিত ছাত্রীর অভিভাবকের বার্ষিক আয় ৭৫,০০০/- টাকা কম হতে হবে এবং ৭৫ শতাংশের কম জমি থাকতে হবে।

উপবৃত্তি প্রাপ্তির যোগ্য শিক্ষার্থীদের তালিকা নিরূপণ। অতপর সংশিস্নষ্ট শিক্ষার্থীদের নামে ব্যাংক হিসাব খোলা এবং চেকের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের টাকা প্রদান করা। প্রতি ছয় মাসে ০১ কিসিত্ম  তথা বৎসরে ০২ বারউপবৃত্তির টাকা প্রদান করা।

 

উপবৃত্তি প্রকল্পের আওতায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহের সংখ্যাঃ

মহাবিদ্যালয়                -  ০২টি

উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়    -  ০১টি

মাদ্রাসা (আলিম পর্যায়)    -  ০২টি

কারিগরী মহাবিদ্যালয়      -  ০১টি

 

 

০৩

শিক্ষামন্ত্রণালয় কর্তৃক প্রেরিত বিনামূল্যের পাঠ্যপুসত্মক সমূহ গ্রহণ, সংরক্ষ ণ ও প্রতিষ্ঠান পর্যায়ে বিতরণ।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষাঅফিস

বিদ্যালয় পর্যায়ে ৬ষ্ঠ থেকে ৯ম শ্রেণিতে এবং মাদ্রাসা পর্যায়ে ১ম থেকে ৯ম শ্রেণিতে ভর্তিকৃত ও অধ্যয়ণরত শিক্ষার্থীরা বিনামূল্যের পাঠ্যপুসত্মক সমূহ  প্রাপ্য হয় । 

 

 

শিক্ষার্থীদের তালিকা প্রণয়ন এবং প্রতিষ্ঠান কর্তৃক তাদের মাঝে বিনামূল্যের পাঠ্য পুসত্মক সমূহ বিতরণ করা হয়।